৬৪তম ফার্মেসি কোর্স ২০২৪ ভর্তি বিজ্ঞপ্তি – ফার্মাসিস্ট কোর্সে ভর্তি Form

ফার্মেসি একটি ইংরেজি শব্দ যা মূলত মেডিকেল সাইন্স এর সাথে যুক্ত। ফার্মেসি বিষয়টি মূলত মেডিকেল সাইন্স এর দ্রুত উন্নতির জন্য হেলথ সাইন্স এবং কেমিক্যাল সায়েন্সের ঠিক মাঝামাঝি জায়গায় অবস্থান করা। আমরা ডাক্তারের থেকে পরামর্শ গ্রহণ করার পর নিকটস্থ কোন একটি ফার্মেসিতে যোগাযোগ করে সেখান থেকে আমাদের ডাক্তাররা যে পরামর্শ দিয়েছে সে পরামর্শ অনুসারে যে সকল ওষুধগুলো ক্রয় করার জন্য লিখে দিয়েছে সেগুলো ক্রয় করার চেষ্টা করি। আপনার মনে কি কখনো প্রশ্ন জেগেছে এ সকল ফার্মেসির দোকানে যে কেউ দিতে পারবে কিনা।

ফার্মেসি যে পরিচালনা করে তাকে বলা হয় ফার্মাসিস্ট তার দায়িত্ব নিয়মিত ওষুধের ব্যবহার নির্দিষ্ট করা এবং একজন ডাক্তার যে প্রেসক্রিপশন প্রদান করে সেটার ভিত্তিতে রোগীকে ওষুধ প্রদান করা। তার দায়িত্ব নিয়মিত ওষুধের ব্যবহার নির্দিষ্ট করে ফার্মাসিস্ট পদে সরকারি অথবা বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের চাকরি পেতে হলে আপনাকে অবশ্যই ফার্মেসি কোর্স নিশ্চিত করতে হবে এর পাশাপাশি আপনি যদি একটি ফার্মেসীর দোকান খুলতে চান তাহলে আপনাকে অবশ্যই ফার্মেসীর কোর্স সম্পূর্ণ করে সেটা সার্টিফিকেট সংগ্রহ করতে হবে। সুতরাং আপনারা যারা এই মুহূর্তে ফার্মেসি কোর্স করার প্রতি আগ্রহী তারা আমাদের পুরো আর্টিকেলটি পড়বেন।

ফার্মেসি কোর্স বিভিন্ন মেয়াদে হয়ে থাকে এর মধ্যে একটি রয়েছে তিন মাস মেয়াদী অন্যদিকে ছয় মাস মেয়াদে ডিপ্লোমা ইনফার্মেশন এবং ৪ বছর মেয়াদী স্নাতক কোর্স সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয়। আপনি কোন ধরনের ফার্মেসি কোর্স করবেন সেটার উপর ভিত্তি করে আপনাকে সেই কোর্সে ভর্তি হতে হবে। আমরা আপনাদের এখানে প্রতিটি কোর্সের আবেদন করার নিয়ম থেকে শুরু করে একজন প্রার্থীকে কি কি যোগ্যতা অর্জন করতে হবে সে সংক্রান্ত তথ্য দিয়েছি।

প্রতিদিনই বাজারে আসতে নিত্যনতুন মেডিসিন এবং মেডিকেল সাইন্সে আসছে বিপ্লব যার কারণে একজন ফার্মাসিস্ট হিসেবে আপনি যত বেশি উন্নতি করতে পারবেন আপনার চাকরি অথবা ফার্মেসির দোকান সফল হওয়ার সম্ভাবনা তত বেশি। বাংলাদেশের জনসংখ্যা প্রতিনিয়ত বেড়ে চলেছে যার কারণে একজন ফার্মাসিস্ট হিসেবে আপনাকে অবশ্যই এদের চাহিদার প্রতি দৃষ্টি দেখে সঠিকভাবে কোর্স সম্পূর্ণ করতে হবে।

বাংলাদেশে ফার্মেসি কোর্স ও এর ক্যাটাগরি

বাংলাদেশের ফার্মেসি শিক্ষার যাত্রা শুরু হয় ১৯৬৪ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসী বিভাগ প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে। ফার্মেসি বিভাগ প্রতিষ্ঠার পর প্রথম একাডেমী শেষ হলো ১৯৬৪-৬৫ মাত্র চার জন ছাত্রী সহ ২৪ জন শিক্ষার্থী নিয়ে যাত্রা শুরু হয়েছিল। যাইহোক ফার্মেসি অধ্যাদেশ ১৯৭৬ এর জারি হওয়ার পর বাংলাদেশ ফার্মেসি একটি পেশা হিসেবে স্বীকৃত হয় প্রাথমিকভাবে একাডেমিক পাঠ্যক্রমে এবং এক বছরের মাস্টার্স অফ ফার্মেসি কোর্সের প্রোগ্রামের ভিত্তিতে। পরবর্তীতে স্নাতক প্রোগ্রামটিকে ১৯৭৬ সালে চার বছরের ব্যাচেলর অফ ফার্মেসি সম্মান ডিগ্রিতে উন্নীত করা হয়েছিল এবং ২০১০ সালে আন্তর্জাতিক ফার্মের সাথে মানিয়ে নিতে হাসপাতাল এবং ফার্মেসিউটিক্যাল শিল্পে ইন্টার্নশিপ সহজ নাটক কোর্সটি কে আরো পাঁচ বছরে উত্তীর্ণ করা হয়।

ফার্মেসী সার্টিফিকেট রেজিষ্ট্রেশন কোর্স

বাংলাদেশ ফার্মেসী পরিচালনার জন্য নূন্যতম যে কোর্স সার্টিফিকেট এর প্রয়োজন হয় তা হল C-Grade ফার্মাসিস্ট কোর্স। এটিকে ফার্মেসী ফাউন্ডেশন কোর্স বা ফার্মেসীর সার্টিফিকেট রেজিস্ট্রেশন কোর্সে বলা হয়। এ সার্টিফিকেট ড্রাগ লাইসেন্স করতে ও নবায়ন করতে প্রয়োজন হয় যারা কোর্সটি সফলভাবে সম্পন্ন করতে পারেন তাদেরকে ফার্মাসিস্ট বলা হয়ে থাকে। ফার্মেসি সার্টিফিকেটের জন্য যে সকল কার্যক্রম প্রতিটি আবেদনকারী কে করতে হয় এসে সংক্রান্ত তথ্য এখানে প্রকাশ করা হয়েছে।

বাংলাদেশ ফার্মেসি শিক্ষা ও পেশার নিয়ন্ত্রক প্রতিষ্ঠান ফার্মেসি কাউন্সিল অফ বাংলাদেশ পিসিবি এই কোর্সটি নিয়ন্ত্রণ করে থাকে। প্রতিবছর কাউন্সিল থেকে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয় গত ৩০ শে সেপ্টেম্বর অফিসিয়াল ভাবে তাদের ওয়েবসাইটের ভিত্তিতে চারটি সেশনে দ্বারা পরিচালিত একটি নতুন বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। উক্ত সেশনের মেয়াদ তিন মাস করে এবং ক্লাস শেষে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয় এবং পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হলে সার্টিফিকেট প্রদান করা হয়। কোর্স সম্পূর্ণ হলে আপনি সার্টিফিকেট উত্তোলনের জন্য অনলাইনের মাধ্যমে আবেদন করতে পারবেন।

2023-08-27-03-34-939778d7b9f08c6f0a93556343281e15-page-0001


2023-08-27-03-34-939778d7b9f08c6f0a93556343281e15-page-0002
2023-08-27-03-34-939778d7b9f08c6f0a93556343281e15-page-0003
2023-08-27-03-34-939778d7b9f08c6f0a93556343281e15-page-0004
2023-08-27-03-34-939778d7b9f08c6f0a93556343281e15-page-0005
2023-08-27-03-34-939778d7b9f08c6f0a93556343281e15-page-0006
2023-08-27-03-34-939778d7b9f08c6f0a93556343281e15-page-0007

  • সেপ্টেম্বর থেকে নভেম্বর মাসের মধ্যে যেকোনো সময়ের প্রথম শুক্রবার
  • ডিসেম্বর থেকে ফেব্রুয়ারি মাসের প্রথম শুক্রবার
  • মাস থেকে মে মাসের প্রথম শুক্রবার
  • জুন থেকে আগস্ট মাসের প্রথম শুক্রবার

ক্লাস শুরুর ১৫ দিন আগে আবেদন পত্র বাংলাদেশ ফার্মেসি কাউন্সিলের জমা দিতে হয় একটি ব্যাচের সর্বোচ্চ ১০০ জন প্রশিক্ষণের তিনি এদের কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়। একটি শাখায় একটি সেশনে সর্বোচ্চ দুইটি ব্যাচ পরিচালনা করা হয় অর্থাৎ এক টাকায় ১০০ জনের মোট ২০০ জন সর্বোচ্চ ভর্তি হতে পারে। এবার জেনে নিন রেজিস্ট্রেশন কোর্সের জন্য কি কি যোগ্যতা প্রয়োজন।

  • আবেদনকারী কে অবশ্য এসএসসি ও সমমান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হবে।
  • আবেদনকারীর বয়স সীমা ১৭ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে হতে হবে।
  • ড্রাগ লাইসেন্সধারী ফার্মেসির মালিক নিজে বা তার ফরমান সাথে কর্মরত এক বা একাধিক ব্যক্তি আবেদন করতে পারবেন।

কোর্স ফিড কত টাকা

আলোচনার এই অংশে আমরা আপনাদের সাথে ফার্মেসি রেজিস্ট্রেশনের জন্য কত টাকা ফ্রি ধার্য করা হয়েছে সেই তথ্যটি উপস্থাপন করতে চলেছে। কোর্স ফি ২৩৫০ টাকা ধার্য করা হয়েছে। প্রার্থীকে আবেদন করার সময় আবেদন ফরম ১০ টাকা এবং পরীক্ষার ১৫০০ টাকা। সর্বমো ৩৮৬০ টাকা বাংলাদেশ ফার্মেসি কাউন্সিলের অনুকূলে পে অর্ডারের মাধ্যমে জমা দিতে হবে। এর সম্পর্কিত সকল ভেট বা অন্যান্য চার্জ তা আপনাকে বহন করতে হবে কোথা থেকে আবেদনপত্র সংগ্রহ করলেন এমন প্রশ্ন আপনার মনে থাকলে যোগ্যতা সম্পন্ন আগ্রহের প্রার্থীরা বাংলাদেশ কেমিস্ট এন্ড ড্রাগিস্ট সমিতির জেলা শাখা উপশাকা অফিস থেকে আবেদন ফরম সংগ্রহ করতে পারবেন।

যে সকল কাগজপত্র প্রয়োজন

  • অনলাইনে ভর্তির জন্য যে ফর্ম পূরণ করেছেন সেই আবেদন ফ্রম।
  • এসএসসি ও সমমান সনদপত্রের সত্যায়িত কপি।
  • সংশ্লিষ্ট ফার্মেসি ড্রাগ লাইসেন্সের সত্যায়িত কপি এবং মনোনীত ব্যক্তির ক্ষেত্রে ফার্মেসি নিজস্ব প্যাডের মালিক কর্তৃক প্রত্যয়ন পত্র।
  • জাতীয় পরিচয় পত্রের সত্যায়িত কপি।
  • সদ্য তোলা দুই কপি পাসপোর্ট সাইজের ল্যাব প্রিন্ট ছবি।
  • নির্ধারিত ফি অফারের যোগ্য পে অর্ডারের মাধ্যমে জমা করার পর্যায় স্লিপ দেয়া হবে তা।

ফার্মাসিস্ট এর বেতন কত?

আপনাদের মনে অনেকেরই প্রশ্ন রয়েছে যে একজন ফার্মাসিস্ট এর বেতন কত হবে সরকারিভাবে যদি নিয়োগ প্রাপ্ত হন সে ক্ষেত্রে। চাকরি শুরুতেই আপনি দশ হাজার টাকা থেকে ২০ হাজার টাকার মতন বেতন পাওয়া সম্ভব উক্ত ডিপ্লোমা করছে পুরো সমাজের উপর আপনি যদি বেশ কিছু উচ্চ পর্যায়ের নিজেকে নিয়ে যেতে পারেন তাহলে আপনি তার থেকে বেশি বেতন তুলতে পারবেন।

উপরের অংশে আপনাদের ফার্মেসী বিজ্ঞপ্তি থেকে শুরু করে ফার্মেসি কোর্সের রেজিস্ট্রেশন করার জন্য যে সকল তথ্য জানার দরকার সেগুলো শেয়ার করেছি। আমরা মনে করি আমাদের দেওয়া তথ্য গুলোর ভিত্তিতে আপনি চাইলে স্বল্প সময়ের মধ্যেই আপনার ফার্মেসি কোর্সের রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করতে পারবেন। ফার্মেসি কোর্স সহ অন্য যেকোন চাকরির বিজ্ঞপ্তি সংক্রান্ত তথ্য পাওয়ার জন্য আমাদের অন্যান্য আর্টিকেলগুলো পড়তে পারেন।

14 thoughts on “৬৪তম ফার্মেসি কোর্স ২০২৪ ভর্তি বিজ্ঞপ্তি – ফার্মাসিস্ট কোর্সে ভর্তি Form”

  1. ২০২৪ সালের ভর্তি আবেদন কবে থেকে শুরু হবে এবং জানবো কি ভাবে, অনুরোধ করছি যদি কোন সংবাদ প্ত্র বা ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ায় প্রচার করা হয়, তাহলে ভালো হতো।

    Reply
    • ৬৪ তম ব্যাচে ভর্তি নতুন কোন সার্কুলার দিছে

      Reply
  2. ২০২৪ সালের ৬৪ তম ব্যাচ এর সার্কুলার কবে হবে? কিভাবে জানতে পারবো

    Reply
  3. ৬৪ তম ব্যাচ ভর্তি কবে নাগাদ হতে পারে ।কিভাবে জানতে পারব। বরগুনা জেলায় কোন সুযোগ আছে কিনা । ধন্যবাদ

    Reply
  4. অা‌মি ফা‌র্মেসী কোর্সে ভ‌তি হ‌তে চাই। ভ‌র্তি হওয়ার জন‌্য কি‌কি কর‌তে হ‌বে। মোট কত খরচ হ‌বে। কত মাস লাগ‌বে শিখ‌তে

    Reply
  5. ২০২৪ সালের ৬৪ তম ব্যাচ ফার্মেসী কোস্ এর সার্কুলার কবে হবে? কিভাবে জানতে পারবো, বিভাগ-চট্রগ্রাম

    Reply
  6. ৬৪ তম বেচে সি গ্রেড ফার্মাসিস্ট প্রশিক্ষণ কোর্সের ভর্তি বিজ্ঞপ্তি কবে প্রকাশ হবে, জানালে উপকৃত হব।

    Reply
  7. ৬৪ তম ব্যাচের ভর্তি কবে শুরু এবং বরগুনায় করা যাবে কিনা?

    Reply
  8. ফার্মাসিস্ট কাউন্সিল
    গুরুত্বপূর্ণ ও সঠিক তথ্য দিবেন আশা করি।

    Reply
    • ফার্মাসিস্ট কোর্সের ভর্তি কখন শুরু হবে জানতে চাই।

      Reply
  9. ৬৪ তম ব্যাচে ভর্তি হতে ইচ্ছুক। সার্কুলার কবে দেবেন?

    Reply

Leave a comment